মানুষ হত্যার দলিল

৳ 440 ৳ 220

রাখাইন-জনপদে ‘মানুষ হত্যার দলিল’
‘সবে বেরিয়েছি শরণার্থী শিবির থেকে। ফোনটা বেজে উঠল। অপর প্রান্তে আমার স্ত্রী। হ্যালো বলতেই আমার গলার অস্বাভাবিকতা ‘ও’ আঁচ করতে পেরেছিল।
‘কী হয়েছে তোমার? কোনো সমস্যা?’ বললাম, ‘আমার জীবনের সবচে’ বাজে সাক্ষাৎকারটা শেষ করলাম এইমাত্র।’
আমি তখন মিয়ানমার-বাংলাদেশ সীমান্তের কাছে দাঁড়িয়ে। এই সীমান্ত দিয়েই প্রায় পাঁচ লাখ রোহিঙ্গা প্রবেশ করেছে। সম্ভবত এই রোহিঙ্গারাই বিশ্বের সবচে’ অনাকাঙ্ক্ষিত নৃগোষ্ঠী। মিয়ানমার সরকার নির্বিচারে নরহত্যা শুরু করলে তাঁরা প্রাণ নিয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসেন। তাঁদেরই একজন রাজুমা (সম্ভবত নাজমা)। অল্পবয়স্ক এই নারীর সঙ্গে কথা বলে আমি বিদায় নিলাম। লাল রঙের ঘোমটা দেওয়া শীর্ণকায়া সেই নারী আমার জীবনের সবচে’ ভীতি-জাগানিয়া গল্প বলে চোখের নিমেষে মিলিয়ে গেলেন জনস্রোতে।’
―জেফরি জেটলম্যান, ব্রিটিশ সাংবাদিক ।। বরাত―নিউইয়র্ক টাইমস অনলাইন সংস্করণ সূত্রে প্রথম আলো

 

লেখক

পৃষ্ঠা

302

প্রকাশনী

ভাষা

রাখাইন-জনপদে ‘মানুষ হত্যার দলিল’
‘সবে বেরিয়েছি শরণার্থী শিবির থেকে। ফোনটা বেজে উঠল। অপর প্রান্তে আমার স্ত্রী। হ্যালো বলতেই আমার গলার অস্বাভাবিকতা ‘ও’ আঁচ করতে পেরেছিল।
‘কী হয়েছে তোমার? কোনো সমস্যা?’ বললাম, ‘আমার জীবনের সবচে’ বাজে সাক্ষাৎকারটা শেষ করলাম এইমাত্র।’
আমি তখন মিয়ানমার-বাংলাদেশ সীমান্তের কাছে দাঁড়িয়ে। এই সীমান্ত দিয়েই প্রায় পাঁচ লাখ রোহিঙ্গা প্রবেশ করেছে। সম্ভবত এই রোহিঙ্গারাই বিশ্বের সবচে’ অনাকাঙ্ক্ষিত নৃগোষ্ঠী। মিয়ানমার সরকার নির্বিচারে নরহত্যা শুরু করলে তাঁরা প্রাণ নিয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসেন। তাঁদেরই একজন রাজুমা (সম্ভবত নাজমা)। অল্পবয়স্ক এই নারীর সঙ্গে কথা বলে আমি বিদায় নিলাম। লাল রঙের ঘোমটা দেওয়া শীর্ণকায়া সেই নারী আমার জীবনের সবচে’ ভীতি-জাগানিয়া গল্প বলে চোখের নিমেষে মিলিয়ে গেলেন জনস্রোতে।’
―জেফরি জেটলম্যান, ব্রিটিশ সাংবাদিক ।। বরাত―নিউইয়র্ক টাইমস অনলাইন সংস্করণ সূত্রে প্রথম আলো

——————————————-

আমেনা বেগম। তার বয়স যখন ১৪ বছর তখনই বিয়ে হয়ে যায়। বিয়ের দেড় বছরেই জন্ম হয় প্রথম সন্তানের। নাম রাখেন শিহাব। মিয়ানমার সেনাবাহিনীর হাতে ভয়াবহ যৌন নির্যাতনের শিকার হন আমেনা বেগম। সেনাসদস্যদের ধর্ষণের সময় চিৎকার করে কাঁদতে থাকে চার বছরের পুত্র শিহাব। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তারা গলা কেটে হত্যা করে পুত্র শিহাবকে। আমেনা বেগমের ওপর যখন পাশবিক নির্যাতন চলছিল তখন তিনি চোখের সামনে দেখেন এ দৃশ্য।

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “মানুষ হত্যার দলিল”

১ম ধাপ: পছন্দের বইটিকে CART এ এড করুন। অর্থাৎ 'এখনই কিনুন' বাটনে ক্লিক করুন
২য় ধাপ: এবার আপনার CART পেজ এ যান। (ওয়েবসাইট এর উপরের ডান কোণায় CART মেনুতে যান এবং VIEW CART এ ক্লিক করুন)
৩য় ধাপ: আপনার কার্ট আইটেমগুলো দেখে নিন এবং সবকিছু ঠিক থাকলে Proceed to Checkout এ চলে যান।
৪র্থ ধাপ: আপনার শিপিং ঠিকানা ও বিবরণ দিন এবং পেমেন্ট সম্পন্ন করুন
৫ম ধাপ: এরপর PLACE ORDER এ ক্লিক করুন।

একাধিক বই কিনতে: যতগুলো বই কিনতে চান সবগুলো CART এ এড করুন, তারপর চেকআউট করুন।

আপনি অর্ডার করার পর, আমরা পেমেন্ট চেক করবো এবং আপনার বই/বইগুলো ডেলিভারি দেয়া হবে। যে কোনও প্রকার হেল্প এর জন্য আমাদের ফোন অথবা মেইল করুন।